কিভাবে অনলাইনে আয় করবেন | অনলাইন ইনকাম ২০২২

আপনার যদি আইটি বিষয়ে জ্ঞান থাকে তাহলে নিজের আত্ববিশ্বাস মেধা কে কাজে লাগিয়ে বিভিন্ন মাধ্যম অনলাইনে কাজ করে ইনকাম করতে পারবেন।

অনলাইনে কাজ করতে হলে ধর্যধারন করে লেগে থাকতে হবে, নিয়মিত কাজ করলে একসময় অবস্যই ভাল টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

আয় করতে চাইলে বিভিন্ন কৌশলে আয় করা যায়। বিভিন্ন মার্কেট প্লেস থেকে আয় করতে হলে একাউন্ট করতে হবে এতে বিভিন্ন দেশের কাজদানকারি প্রতিষ্টানের বায়ারের সাথে সরাসরি কাজ সম্পর্কে আলোচনা করে কাজ চুক্তি করে মুজরি পাওয়া যাবে।

অনলাইন থেকে ইনকাম: বর্তমানকালে দ্রত গতির নেট দুনিয়ায় ইন্টারনেট এতটাই জনপ্রিয় হয়েছে যে, লোকজন  প্রায় অনলাইনের উপর নির্ভরশীল।

বাজারের কেনাকাটা থেকে শুরু করে অফিস আদালতের বিভিন্ন ধরনের কাজ অনলাইনে করতে পারছে । বর্তমান লোকজন এইসব কাজ অনলাইনে করে প্রচুর পরিমানে টাকা  আয় করছে। 

অনলাইন থেকে ইনকাম করার জন্য অনেক উপায় রয়েছে । আপনি যদি অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করতে চান তাহলে তাহলে সঠিক গাইডলাইন সঠিক পদক্ষেপ নিতে হবে ধর্যধারন করে নিজের দক্ষতা বৃদ্ধি করতে হবে।

কিভাবে অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম শুরু করবেন বা তার পদ্বতি গুলো আলোচনা করা হল:

ইউটিউবিং: বর্তমানে অনলাইন আয়ের অন্যতম একটি প্লাটফর্ম হল ইউটিবিং। আপনার যদি কথাবলার দক্ষতা ভাল হয়ে থাকে এবং প্রেজেন্টেশন ভাল হয় তাহলে নির্ধারিত  একটা বিষয় নিয়ে ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করে সেখানে  ভিডিও আপলোড করতে পারেন।

ভিডিওর মান কোয়ালিটি সম্পৃন হতে হবে এবং ভিডিওটি যেন ভাল হয় সেদিকে লক্ষ রাখতে হবে। ভিডিও তৈরি করে সঠিক ভাবে সব কার্যকলাপ মেনে ইউটিউবে আপলোড করতে হবে।

যদি ভিডিওর মান ভাল হয় তাহলে সেটিতে অনেক ভিউ হবে যত ভিউ হবে তত বেশি ইনকাম করতে পারবেন।

মনে রাখবেন ভিডিও যেন ইউনিক হয় অন্য কোথা থেকে কপি করে দিলে হবে না নিজস্ব মেধা দিয়ে উপযুক্ত তথ্য দিয়ে ভিডিও বানাতে হবে।

ভিডিও যেন তথ্যবহূল হয় লোকজন যাতে ভিডিও দেখে মজা পায় সেদিকে লক্ষ রাখতে হবে । 

ফেসবুক থেকে ইনকাম : ফেসবুক পেজ তৈরি করে সেখানেও ইউটিউব এর মত ভিডিও আপলোড করে টাকা ইনকাম করা যায়। আপনার ফেসবুক পেজে যদি ফলোয়ার বেশি হয় তাহলে এখনি ইনকাম করার জন্য ফেসবুকে নেমে পরুন । 

ব্লগিং: আপনার যদি লেখালেখি করার দক্ষতা ভাল হয়ে থাকে তাহলে নির্ধারিত একটা বিষয় নিয়ে আর্টিকেল লিখে আপনি আপনার ব্লগ সাইটে প্রকাশ করতে পারেন।

ব্লগ সাইটের সমস্ত নিয়ম মেনে সেখানে কাজ করলে একসময় ভাল একটা আ্যমাউন্ট আয় করতে পারবেন । নির্ধারিত একটা বিষয় নিয়ে ব্লগ সাইট তৈরি করে ভাল মানের আর্টিকেল পাবলিস করতে হবে।

আর্টিকেল যেন ইউনিক তথ্যবহূল ভাল হয় সেদিকে লক্ষ রাখতে হবে । নিয়মিত ব্লগে আর্টিকেল পাবলিস করতে হবে তাহলে লোকজন আকূষ্ট হয়ে আপনার ব্লগ ভিজিট করবে।

লোকজন যখন বেশি বেশি আপনার ব্লগ ভিজিট করবে তখন গুগল আ্যডসেন্স আবেদন করতে হবে । আ্যডসেন্স এপ্রুভ হলে তারপর সেখান থেকে আয় শুরু হবে।

ডিজাটাল মার্কেটিং: ইন্টারনেটের মাধ্যমে সহজে ইনকামের অন্যতম একটি কৌশল হল ডিজিটাল মার্কেটিং । অনলাইনে লোকজন কে আকূষ্ট করে পন্য  দ্রব্যের বিক্রি বা প্রচার প্রসার কে ডিজিটাল মার্কেটিং বলে। 

অনলাইনে মাধ্যমে পন্য দ্রব্যের প্রচার প্রসার করে পন্য দ্রব্যের বিক্রয় বাড়ানো সম্ভব। এই কাজটাকে  অনলাইনে  ডিজিটাল মার্কেটিং বলে  ভাল ভাবে ডিজিটাল মার্কটিং বিষয়ে দক্ষতা অর্জন করতে পারলে ভাল একটা আ্যমাউন্ট আয় করতে পারবেন।

আ্যফেলিয়েট মার্কেটিং:  অনলাইনে কোন একটা কোম্পানী হতে পন্য নিয়ে পন্য দ্রব্যের  বিক্রি বাড়িয়ে আয় করতে হলে আ্যফেলিয়েট মার্কেটিং করতে হবে। ভাল ভাবে আফেলিয়েট মার্কেটিং করতে পারলে বেশ আয় করা সম্ভব ।

মার্কেটপ্লেসে কাজ: অনলাইনে কাজ করতে হলে বিভিন্ন মার্কেটপ্লেস রয়েছে সেখানে সরাসরি বিভিন্ন দেশের কাজ দেওয়া প্রতিষ্টানের বায়ারের সাথে কথা বলে, সরাসরি কাজ নিয়ে, ভাল ভাবে কাজ করে কাজ জমা দিলে, সেখান থেকে কাজের মুজরি পাওয়া যায়।

আপওয়ার্ক , ফাইবার ,ফ্রিল্যানচার জনপ্রিয়  মার্কেটপ্লেসে কাজ করতে হলে এগুলোর আকাউন্ট তৈরি করে সঠিক ভাবে প্রফাইল সেট করে কাজ করলে অবস্যই ভাল ইনকাম করা সম্ভব।

মাইক্রো সাইটে কাজ : অনলাইনে আয় করার জন্য ছোট ছোট  কাজ করার জন্য কিছু মাইক্রো সাইট রয়েছে যেগুলোতে ছোট ছোট কাজ করার মাধ্যমে অল্প অল্প করে একসময় বেশ একটা আ্যমাউন্ট  আয় করা যায়।

বর্তমানে  দেশেও অনেক মাইক্রোসাইট  রয়েছে যেগুলো তে কাজ করে সরাসরি বিকাস, নগদ, রকেটে টাকা নেওয়া যায় ।

আ্যাডভান্স লেভেলের কাজ : আপনার যদি ভাল দক্ষতা থাকে প্রোগামিং পারেন তাহলে গ্রাফিক্স ডিজাইন. ওয়েব ডিজাইন ,আ্যপ ডিপ্লোমেন্ট , সফটওয়্যার , গেমস,আ্যনিমেশন, কাটুন ইত্যাদি তৈরি করে অনলাইনে বিক্রি করে ভাল আম্যাউন্ট আয় করতে পারবেন । 

শেষকথা:

অনলাইনে কাজ করার আগে  অনলাইনে কাজ করার জন্য নিজেকে প্রস্তুত করতে হবে সঠিক জায়গায় সঠিক পদক্ষেপ নিতে হবে । আত্নবিশ্বাসের সহিত কাজ করতে হবে, কাজের কোয়ালিটি ভাল করতে হবে।

আপনি যে কাজে বেশী পারদর্শী সেই কাজটি করতে পারেন । ধর্যধারন করে প্রচুর পরিমান টেকনিক ফলো করতে হবে ।

সঠিক গাইডলাইন ফলো না করলে হয়ত আপনি বার্থ হবেন কিন্তু হাল না ছেরে লেগে থাকলে এক সময় তার ফল পাবেন।

Comments

You must be logged in to post a comment.

Related Articles
Recent Articles
Jul 23, 2022, 12:47 PM - TASRIF SIDDIQI